Aadhibhoutik Uponyashtroyee (Shoriri-Ashoriri, Bahnipatango, Adwaito) Bangla book - Get Bangla Books online- you like to read
আপনি কি পড়ার জন্য চেনা বা অচেনা বাংলা বই খুঁজছেন? বা বুঝে উঠতে পারছেন না যে কোন গল্প, উপন্যাস বা বই পড়বেন এবং সেটা কোথা থেকে কিনবেন। তাহলে এই ওয়েব সাইটি আপনাকে যথাযথ সাহায্য করবে সবচেয়ে ভালো বইগুলি পেতে। যাতে পড়ার পরে পস্তাতে না হয়। আসুন বাছাই করা বেষ্টসেলার বইগুলির থেকে বেছে নিন আপনার উপযোগী বইগুলো। দুনিয়ার বই প্রেমীদের জন্য রইলো অভিনন্দন।

Horror Books White Falcon Publishing তীর্থপ্রতিম দাস
Aadhibhoutik Uponyashtroyee (Shoriri-Ashoriri, Bahnipatango, Adwaito) Bangla book

Aadhibhoutik Uponyashtroyee (Shoriri-Ashoriri, Bahnipatango, Adwaito) Bangla book

Horror Books White Falcon Publishing তীর্থপ্রতিম দাস
বইটির সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বিবরণ:

আধিভৌতিক উপন্যাসত্রয়ী- শরীরী-অশরীরী, বহ্নিপতঙ্গ, ও অদ্বৈত

Book Description

Aadhibhoutik Uponyashtroyee (Shoriri-Ashoriri, Bahnipatango, Adwaito) Bangla book

বইটির ছাড়মূল্য ও বিস্তারিত জানুন From Amazon

Aadhibhoutik Uponyashtroyee (আধিভৌতিক উপন্যাসত্রয়ী)


সংক্ষিপ্ত উপন্যাসত্রয়ীর-

 
শরীরী-অশরীরী:
অগ্নি পেশায় মহাকাশ বিজ্ঞানী। থাকে কেরালা রাজ্যের রাজধানী ত্রিবান্দ্রম শহরে । একদিন এলাহাবাদের ত্রিবেনী সঙ্গমে সে কুড়িয়ে পায় এক অদ্ভুত-দর্শন কাঠের পুতুল । কিছু না ভেবেই সেটাকে বাড়ীতে নিয়ে আসে সে ।
অগ্নি পুতুলটা বাড়ীতে নিয়ে আসার কিছু দিনের মধ্যেই কে বা কারা যেন মেরে ফেলতে চায় ওর নব-পরিণীতা স্ত্রী নৃত্যশিল্পী মোহনাকে। অগ্নির আচরণেও আসে অস্বাভাবিকতা। মাঝে মধ্যেই অদ্ভুত দৃষ্টিতে চেয়ে থাকে মোহনার দিকে। তীব্র এক। ভয়ে শিউরে ওঠে মোহনা ।
নিয়তি ওদের নিয়ে যায় কেরালায় মুন্নারের পাহাড়ী জঙ্গলে। কোনো অতিপ্রাকৃত শক্তি যেন ওকে চোখে চোখে রাখে সব সময়। মোহনা মুন্নারের জঙ্গলে নজরে পড়ে। যায় কিছু অঘােরী সাধুর । তিব্বতী তন্ত্রসাধনার এক গুহ্য পদ্ধতি অনুযায়ী তাদের বহু বছরের সাধনার ধন পূর্ণ করতে প্রয়োজন এক সুলক্ষণা সুন্দরী নারীকে। গভীর। জঙ্গলে অঘোরী সম্প্রদায়ের সাধুদের হাতে বন্দিনী হয় মোহনা।

বহ্নিপতঙ্গ:
মুন্নারের সেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার পর সুস্থ হতে বেশ কয়েক মাস সময় লাগে মোহনার । তারপর অগ্নি আর মোহনা বেড়াতে আসে হায়দ্রাবাদে, গোলকুন্ডা দুর্গে। মোহনার মনে হয় এই দুর্গ , এর প্রতিটি অলিন্দ তার খুব চেনা। এক অভিশপ্ত বংশের এক বেপরোয়া। মনোরোগী চেয়ে থাকে মোহনার দিকে। মোহনার মুখের আদলে সে খুঁজে পায় চারশ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া অসামান্য সুন্দরী এক রানীর মুখশ্রী। তারা বংশপরম্পরায়। খুঁজে আসছে সেই রানীকে।
ছায়ার মত অনুসরণ করে সে মোহনাকে।
সেই রহস্যময় দুর্গে একটি বিশেষ গোপন সুড়ঙ্গ কেন এত আকর্ষণ করছে মোহনাকে? কি আছে সেখানে? ইতিহাসের কোনো অনাবিষ্কৃত রহস্য ? তীব্র মোহের আবেশে এক সন্ধ্যেয় ওই সুড়ঙ্গে ঢুকে পড়ে মোহনা।
পিছনে সেই অভিশপ্ত মানুষটি।

অদ্বৈত:
হায়দ্রাবাদে গোলকুন্ডা ফোর্টের রহস্য উন্মোচনের পর বেশ কয়েক মাস কেটে গিয়েছে। অগ্নি। আর মোহনা বেড়াতে গিয়েছে শ্রীশৈলম পাহাড়ে শ্রী শ্রী মল্লিকার্জুন জ্যোতির্লিঙ্গ দর্শনে। সেখানে মন্দিরে রহস্যময় ভাবে হারিয়ে যায় মােহনা। কয়েক শতাব্দী পুরাতন এক সংস্কৃত। গ্রন্থে বর্ণিত কিছু পৈশাচিক ঘটনা অনুযায়ী নিয়ন্ত্রিত হতে থাকে অগ্নির আর মোহনার জীবন। নেপথ্যে শ্রীশৈলোমের এক তান্ত্রিক কাপালিক, আজও ওই পাহাড়ের গোপন গুহায় বসে কিছু গুহ্য সাধনা করেন তিনি।
ঠিক একই সময়ে কলকাতার পার্ক স্ট্রীটে এক ভয়াবহ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয় মোহনার প্রিয় বান্ধবী, সাংবাদিক লর্না মেরেডিথ। নৃসিংহদেবের কয়েকশ বছরের পুরানো অভিশাপ আছে। ওদের বংশে, যার রেশ আজও রয়ে গিয়েছে লর্নার জীবনে। সেই সব ঘটনা আবর্তিত হয় । পুরনো কলকাতার কিছু ভয়ংকর ঘটনাকে ঘিরে, যখন ভারত শাসন করত ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানী, আর কলকাতার রাস্তায় ঘুরে বেড়াত ছদ্মবেশী ঠগীরা।।
আদিম কলকাতার সেই সব রহস্যময় ঘটনার সূত্র খুঁজে পাওয়া যায় এক রহস্যময় আকৃতির পাহাড়ে, যেখানে ঘুমিয়ে থাকেন নৃসিংহদেব । ঘটনার কিছু সুত্র ইঙ্গিত করে শ্রীশৈলম পাহাড়ের দিকে, যেখানে মোহনা বন্দিনী। রহস্যভেদে নামে অগ্নি ও লর্না । ধুমকেতুর মত উদিত হন গোলকুন্ডা দুর্গের সেই অভিশপ্ত মানুষটি। সামনে আসে মুন্নারের সেই ভয়াবহ ঘটনাগুলির রহস্য; যা ইঙ্গিত করে আরো ভয়ংকর কিছু যোগাযোগের দিকে।।

লেখকের সংক্ষিপ্ত পরিচয়-
ড: তীর্থপ্রতিম দাস পেশায় মহাকাশ বিজ্ঞানী। ভারতের অন্তরীক্ষ গবেষণা কেন্দ্রের (ইসরো) মুখ্যালয়ে কর্মরত।
ছাত্রজীবন কেটেছে কলকাতার সেন্ট লরেন্স হাই। স্কুলে, তারপর পদার্থবিদ্যায়। সাম্মানিক স্নাতক হয়েছেন। সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ, কলকাতা থেকে। স্নাতকোত্তরে পড়েছেন বি টেক এবং এম টেক, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের। রেডিও ফিজিক্স এন্ড ইলেকট্রনিক্স বিভাগ থেকে। পি এইচ ডির গবেষণা। করেছেন কর্মরত অবস্থায়, বিষয় ছিল চাঁদের আবহমণ্ডল।
ভালোবাসেন লিখতে, ভ্রমন। করতে। ভালবাসেন কল্পনা, রহস্য।

Buy this Bangla book online- Aadhibhoutik Uponyashtroyee (আধিভৌতিক উপন্যাসত্রয়ী)
 Book details:-
                        • Item Weight : 420 g
                        • Paperback : 368 pages
                        • ISBN-10 : 9389530741
                        • ISBN-13 : 978-9389530742
                        • Product dimensions : 13.97 x 2.54 x 21.59 cm
                        • Publisher : White Falcon Publishing; First edition (31 December 2019)
                        • Language: : Bengali

                                              0 Reviews:

                                              Post Your Review